গণসংখ্যা নিবেশনের গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা

যে কোন গবেষণা ও অনুসন্ধানমূলক কাজে সংগৃহীত তথ্য-উপাত্তের সংখ্যাতাত্ত্বিক ব্যাখ্যা বিশ্লেষণের জন্য গণসংখ্যা নিবেশনের প্রয়োজনীয়তা ও গুরুত্ব অপরিসীম। প্রাথমিক উৎস থেকে এলোমেলা ভাবে সংগৃহীত তথ্যসমূহ দিয়ে খুব সহজে গবেষণার কাজ করা যায় না। কারণ এলোমেলো ভাবে সংগৃহীত তথ্য থেকে তথ্যের বৈশিষ্ট্য বা গুণাবালী সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা পাওয়া যায় না। তবে সঠিক ভিত্তি অনুসারে তথ্যসমূহ সাজিয়ে তালিকার মাধ্যমে প্রকাশ করা হলে তথ্যের বৈশিষ্ট্য বা গুণাবলী সুন্দর এবং স্পষ্টভাবে ফুটে উঠে। যার ফলে এক নজরে তথ্য এবং গবেষণার বিষয়বস্তুর বিভিন্ন দিক সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা পাওয়া যায়। নিচে গণসংখ্যা নিবেশনের কিছু গুরুত্ব এবং প্রয়োজনীয়তা তুলে ধলা হল।

১। গণসংখ্যা নিবেশন যে কোন তথ্যকে সংক্ষিপ্ত এবং সহজবোধ্য আকারে উপস্থাপন করতে সহায়তা করে।

২। গণসংখ্যা নিবেশন তথ্য সারির অন্তর্নিহিত তথ্য সম্পর্কে ধারণা প্রদান করে।

৩। গণসংখ্যা নিবেশন তথ্য সারির কেন্দ্রীয় মানের অবস্থান, আকার, আয়তন, পরিসংখ্যানিক ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ এবং গণনার কাজ সহজবোধ্য করে দেয়।

8। গণসংখ্যা নিবেশন কম সময়ে এবং কম পরিশ্রমে যে কোন গবেষককে তার গবেষণার কাজে তথ্য সারিকে উপযোগী করে তুলে।

৫। গণসংখ্যা নিবেশন বা সারণির সাহায্যে তথ্যকে বিভিন্ন রকম লেখা ও চিত্রের মাধ্যমে উপস্থাপন করা যায়।

৬। নিবেশনের গণসংখ্যার সাহায্যে তথ্য সারির কেন্দ্রীকতা, বিস্তৃতি, পরিঘাত, বিঙ্কমতা, সূঁচলতা, সংশ্লেষ ইত্যাদি পরিসংখ্যানিক ধ্রুবকগুলোর (parameters) পরিমাপ নির্ণয় সহজ করে দেয়।

৭। গণসংখ্যা নিবেশন একই আকৃতির এবং একই বৈশিষ্ট্যের ২টি তথ্য সারিকে তুলনা উপযোগী করে তুলে এবং পরিশেষে যথার্থতা যাচাইয়ের সুযোগ করে দেয়। [সংকলিত]

Add a Comment

Your email address will not be published.