গণসংখ্যা নিবেশন এবং এর প্রকারভেদ | Frequency Distribution & Its Types

গণসংখ্যা নিবেশন [Frequency Distribution]: যে কোন গবেষণা বা জরিপ কাজ পরিচালনার উদ্দেশ্যে সংগ্রহীত তথ্য-উপাত্তসমূহ কাঁচা ও অবিন্যস্ত (disorganized) অবস্থায় থাকে। এরূপ প্রাপ্ত তথ্য-উপাত্তসমূহকে কতগুলো ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র অংশে; যেমন- শ্রেণিব্যাপ্তি, ট্যালি মার্ক, গণসংখ্যা বা ঘটনসংখ্যা শিরোনামে বিভক্ত করে এবং অংশগুলোতে তথ্য-উপাত্তসমূহের অবস্থান বা ঘটনা ব্যবস্থা নির্ণয় করার জন্য যে সারণি (table) পাওয়া যায় তাকে গণসংখ্যা নিবেশন বলে।

গণসংখ্যা নিবেশন-এর প্রকারভেদ: গণসংখ্যা নিবেশন সাধারণত দুই প্রকার। যেমন-

ক. বিরত গণসংখ্যা নিবেশন এবং

খ. অবিরত গণসংখ্যা নিবেশন।

ক. বিরত গণসংখ্যা নিবেশন: প্রাপ্ত তথ্য-উপাত্তসমূহকে ক্রমান্বয়ে সাজিয়ে লিখে, কোন সংখ্যাটি কতবার ঘটেছে তা ট্যালি এবং গণসংখ্যা কলামে অন্তর্ভুক্ত করে সাজিয়ে যে সারণি পাওয়া যায় তাকে বিরত গণসংখ্যা নিবেশন বলে। এতে কোন শ্রেণীর প্রয়োজন নেই।

খ. অবিরত গণসংখ্যা নিবেশন: নির্দিষ্ট বৈশিষ্ট্যের ভিত্তিতে কোন তথ্য সারিতে কতগুলো ভিন্ন ভিন্ন শ্রেণীতে বিভক্ত করে কোন শ্রেণীতে কয়টি সংখ্যা আছে তা প্রথমে ট্যালি মার্ক ও পরে গণসংখ্যার সাহায্যে প্রকাশ করে যে সারণি পাওয়া যায় তাকে অবিরত গণসংখ্যা নিবেশন বলে।

অবিরত গণসংখ্যা নিবেশন দুই নিয়মে তৈরি করা যায়। যেমন-

খ.১) অন্তর্ভুক্তি নিয়মে এবং

খ.২) বর্হিভুক্তি নিয়মে।

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *