ধ্রুপদবাদ | Classicism

ধ্রুপদবাদ শব্দটি দিয়ে প্রাচীনকালের শ্রেষ্ঠ কবি-সাহিত্যিকদের গুরুত্বপূর্ণ রচনার প্রথা এবং বিষয়বস্তুকে বুঝানো হয়, যার আবেদন সাম্প্রতিককালেও আছে। ধ্রুপদবাদ-এর ইংরেজি হল ক্ল্যাসিসিজম (classicism)। ইংরেজি Classic শব্দের বাংলা অর্থ হল ধ্রুপদ। আর Classical অর্থ হল ধ্রুপদী। তবে এ পরিভাষাটি বিভিন্ন অর্থ ধারণ করে থাকে। কবি সুধীন্দ্রনাথ দত্ত সর্বপ্রথম ধ্রুপদী (classical) পরিভাষাটি বাংলা সাহিত্যে ব্যবহার করেন।

টি. এস. এলিয়টের মত অনুসারে, ক্ল্যাসিক (classic) হল সাহিত্যের সুপরিণতি এবং পরিপক্কতা, যা সভ্যতার সুপরিণত পর্যায়ের মননশীল ধারণা থেকে উদ্ভূত হয়েছে। সংযত ভাষায় এবং সুসংহত চিন্তার সম্ভ্রম ও ঔজ্জ্বল্যে রচিত সাহিত্যই হল কালজয়ী সাহিত্য। কালজয়ী সাহিত্যের রীতি এবং আদর্শকে অনুসরণ করার প্রবণতাই ক্ল্যাসিসিজম (classicism)। সুচারুভাবে নির্মিত, সুদৃঢ় সংহতি এবং খণ্ড ও সমগ্রের অবিচ্ছেদ্য সম্পর্ক হল ধ্রুপদ (classic) সাহিত্যের মূল বৈশিষ্ট্য। বেদব্যাস রচিত ‘মহাভারত’, বাল্মীকি রচিত ‘রামায়ণ’, হোমার রচিত ‘ইলিয়ড’ ও ‘ওডেসি’, এবং সোফোক্লিস রচিত ‘ইডিপাস’ ধ্রুপদ সাহিত্যের কতিপয় উৎকৃষ্ট উদাহরণ ।

এছাড়া কারুশিল্প, সঙ্গীত এবং নৃত্যকলায় ধ্রুপদী (classical) ধারণা রয়েছে। ধ্রুপদ (classic) এমনি একটি ধারণা, যে ধারণার মাধ্যমে বিগত সময়ের সৃষ্টিসমূহকে সম্মান প্রদর্শন করে গ্রহণ করা হয়। ইউরোপের গ্রিক এবং রোমান শিল্প এবং সাহিত্যে ধ্রুপদ (classic) বৈশিষ্ট্য লক্ষ্য করা যায়।

সর্বোপরি চিত্রকলা, শিল্প, সাহিত্য, প্রভৃতিতে সংযত ভাষায় সুচারুভাবে নির্মাণ, সুসংহত, সুদৃঢ় সংহতি এবং খণ্ড ও সমগ্রের অবিচ্ছেদ্য সম্পর্কের বৈশিষ্ট্যসমূহকে ধ্রুপদ (classic) বলে। যে তাত্ত্বিক প্রেরণায় ধ্রুপদ (classic) নিয়ে আলোচনা ও পর্যালোচনা করা হয় তাকে ধ্রুপদবাদ (classicism) বলা হয়। [সংকলিত]

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *