বায়ুর ওজন (ভর) : একটি দাঁড়িপাল্লা দিয়ে নির্ণয়ের সহজ পদ্ধতি

আমাদের চারপাশের সব জায়গা দখল করে বায়ু বা বাতাস বিরাজ করছে। কিন্তু আমরা এ বায়ুর ভর বা ওজন সম্পর্কে কতটুকু জানি ? আমাদের বাড়ির একটি রুমে যে বাতাস রয়েছে, তার ওজন প্রায় একজন মানুষের ওজনের সমান (প্রায় ৭২ কে.জি.)। বিজ্ঞানীগণ বায়ুর মত হালকা উপাদানের ওজন নির্ণয় করার জন্য জটিল ও সুন্দর যন্ত্র আবিষ্কার করেছেন। বিজ্ঞানীদের আবিষ্কৃত এ যন্ত্র সবার পক্ষে সংগ্রহ করাও সম্ভব নয়। তবে একটি দাঁড়িপাল্লা দিয়ে আমরা নিজে নিজে বায়ুর ওজন নির্ণয় করতে পারি।

বায়ুর ভর নির্ণয় : একটি দাঁড়িপাল্লা তৈরির জন্য কয়েকটা উপকরণ প্রয়োজন। প্রথমে উপকরণ হিসেবে সহজে পাওয়া যায় এমন, একই পরিমাপের দুটি বেলুন, একটি লম্বা ও সোজা লাঠি, কসটেপ, দুটি কৌটা এবং একটি সোজা পেন্সিল সংগ্রহ করি। এবার পর্যায়ক্রমে নিচের কাজগুলো করি।

১. লাঠিটির মাঝ বরাবর একটি দাগ কাটি।
২. পেন্সিলটি কৌটা দুটির উপর আড়াআড়িভাবে রাখি।
৩. লাঠিটি দাগ কাটা বরাবর পেন্সিলটির উপর রাখি। খেয়াল রাখতে হবে, যেন লাঠিটি সমান তালে পেন্সিলটির উপর বসে থাকে।
৪. সমান পরিমাপের দুই টুকরো কসটেপ কেটে নেই।  কসটেপ ব্যবহার করে লাঠিটির দুই প্রান্তে বেলুন দুটি যুক্ত করি। খেয়াল রাখতে হবে, যেন লাঠিটি সমান থাকে – এর মানে হল, বেলুন দুটির ওজন সমান।
৫. এবার লাঠিটি থেকে একটি বেলুন সরিয়ে যতটা সম্ভব বায়ু দিয়ে পূর্ণ করি।
৬. বায়ুপূর্ণ বেলুনটি আবার লাঠির প্রান্তে যুক্ত করি এবং লাঠিটির কেন্দ্রটি পেন্সিলের উপর আগের জায়গায় নিয়ে রাখি। লাঠিটি আগের মত সাম্য অবস্থানে রয়েছে কি ?
দেখা যায়, লাঠিটিসহ বায়ুপূর্ণ বেলুনটি নিচের দিকে নেমে আসছে এবং বায়ুশূন্য বেলুনটি ক্রমে উপরে উঠছে।

যেভাবে কাজ করল: যখন বায়ুপূর্ণ বেলুনকে আবার আগের জায়গায় রাখা হল, তখন বায়ু লাঠিটিকে নিচের দিকে নামিয়ে দিল। এর মানে হল – বায়ুপূর্ণ বেলুনটি বায়ুশূন্য বা খালি বেলুনের চেয়ে ভারী। এ থেকে বুঝা গেল যে, বেলুনের মধ্যে যে বায়ু পূর্ণ করা হয়েছে, তার ভর বা ওজন রয়েছে। [সংকলিত]


[সংকলনে : মো. শাহীন আলম]


 

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *