সংরক্ষিত অর্থনৈতিক অঞ্চল ও জাতীয় জলসীমা

সংরক্ষিত অর্থনৈতিক অঞ্চল [Exclusive Economic Zone] বলতে যে কোন রাষ্ট্রের উপকূলবর্তী জাতীয় জলসীমার (territorial water) বাহিরে ২০০ নটিক্যাল মাইল (nautical mile) পর্যন্ত বিস্তৃত সমুদ্র অঞ্চলকে বুঝায়। অর্থাৎ ১৯৬০ সালে জাতিসংঘের সমুদ্র আইন সম্পর্কিত আন্তর্জাতিক কনভেনশন সম্পাদিত হয়। জাতিসংঘের এ সমুদ্র আইন অনুযায়ী সমুদ্র উপকূলীয় রাষ্ট্রসমূহের জাতীয় জলসীমার বা জাতীয় সমুদ্র সীমার বহির্ভাগে ২০০ নটিক্যাল মাইল পর্যন্ত বিস্তৃত সমুদ্রে মৎস্য এবং খনিজ সম্পদের উপরে সংশ্লিষ্ট রাষ্ট্রের মালিকানা আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত রয়েছে। আর যে কোন রাষ্ট্রের ২০০ নটিক্যাল মাইল বিস্তৃত সামুদ্রিক এ অঞ্চলটিই মূলত সংরক্ষিত অর্থনৈতিক অঞ্চল। তবে সংরক্ষিত অর্থনৈতিক অঞ্চলে মৎস্য এবং খনিজ সম্পদ আহরণ ব্যতিত অন্য যে কোন রাষ্ট্রের সামরিক ও বেসামরিক নৌযান অবাধে চলাচল করার অধিকার রয়েছে। আমরা জানি, ১ নটিক‌্যাল মাইল = ১.৮৫ কিলোমিটার (কি.মি.)। সূতরাং এ হিসেবে সমুদ্রে জাতীয় জলসীমার বহির্সীমা থেকে যে কোন রাষ্ট্রের সংরক্ষিত অর্থনৈতিক অঞ্চলের বিস্তৃতি হল ৩৭০ কিলোমিটার। 

জাতীয় জলসীমা [Territorial Water] হল যে কোন রাষ্ট্রের উপকূলীয় গড় ভাটা (ebb) রেখা থেকে সমুদ্রের দিকে ১২ নটিক্যাল মাইল (nautical mile) বিস্তৃত সমুদ্র অঞ্চল। এ অঞ্চলে অন্য যে কোন রাষ্ট্র কর্তৃক মৎস্য ও খনিজ সম্পদ আহরণ এবং সামরিক ও বেসামরিক নৌযান অবাধে চলাচলে বিধিনিষেধ রয়েছে। অর্থাৎ বিনা অনুমতিতে অন্য রাষ্ট্রের নৌযান এ জলসীমার মধ্যে প্রবেশ করতে পারে না। জাতীয় জলসীমাকে আবার রাজনৈতিক সমুদ্রসীমাও বলা হয়। আমরা জানি, ১ নটিক‌্যাল মাইল = ১.৮৫ কিলোমিটার (কি.মি.)। সূতরাং এ হিসেবে উপকূলের গড় ভাটা রেখা থেকে যে কোন রাষ্ট্রের জলসীমার বিস্তৃতি হল প্রায় ২২ কিলোমিটার।  [মো: শাহীন আলম]

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *