সমাজ | Society

সমাজ [Society] বলতে সাধারণত কোন উদ্দেশ্য সাধনের জন্য কিছু সংখ্যক মানুষের সংঘবদ্ধ হয়ে বসবাস করাকে বুঝায়। আবার, সমাজ হল পরস্পর পরস্পরের উপরে নির্ভরশীল হয়ে গড়ে ওঠা একটি জনসমষ্টি। সমাজ নিয়ে বিভিন্ন সময়ে সমাজবিজ্ঞানীগণ ভিন্ন ভিন্ন সংজ্ঞা প্রদান করেছেন। এরূপ কয়েকটি সংজ্ঞা নিম্নে তুলে ধরা হল।

ক. রবার্ট এম ম্যাকাইভার (Robert M MacIver) এর মতে, “সমাজ হল মানুষের বহুবিধ সম্পর্কের এক বিচিত্র রূপ।” ম্যাকাইভার সমাজের সংজ্ঞা দিতে গিয়ে আরও বলেন, “আমাদের সামাজিক সম্পর্কের জটিল জালই হল সমাজ।” এবং

খ. সমাজবিজ্ঞানী গিডিংস (Giddings) এর মতে, ”সমাজ বলতে আমরা সে জনসাধারণকে বুঝি, যারা সংঘবদ্ধভাবে কোন সাধারণ উদ্দেশ্য সাধনের জন্য মিলিত হয়েছে।” তবে সমাজ বলতে মূলত নিম্নোক্ত ৩টি ধারণাকে নির্দেশ করে থাকে।

প্রথমতঃ সমাজ হল একই জাতীয় জীবনের সমষ্টি, যারা পরস্পর একই অনুভূতিশীল প্রকৃতির হয়ে থাকে। এ ধারণাটির অর্থ হল – গোটা মানব জাতি, দলবদ্ধ পিঁপড়ে, দলবদ্ধ মৌমাছি, প্রভৃতি একই অনুভূতিশীল প্রকৃতির এক একটি আলাদা সমাজ।

দ্বিতীয়তঃ সমাজ হল মানুষের সংঘবদ্ধ সমষ্টি, যারা পরস্পর কোন একটি উদ্দেশ্য সাধনের জন্য সংঘবদ্ধ বা একত্রিত হয়েছে। এ ধারণাটির অর্থ হল – কোন একটি সংঘ বা সমিতি।

তৃতীয়তঃ সমাজ হল যাবতীয় সম্পর্কের ও কার্যাবলীর সমষ্টি, যা মানুষ কোন একটি স্থানে একত্রিত হয়ে সম্পাদন করে থাকে। এ ধারণাটির অর্থ হল – সংঘবদ্ধ মানুষ বা জনসমষ্টি হলেই সমাজ গড়ে উঠে না। জনসমষ্টির প্রতিটি মানুষের মধ্যে মানসিক বন্ধন থাকতে হয়। এ বন্ধনটি সৃষ্টি হয় বিভিন্ন ধরনের সম্পর্কের এবং কার্যাবলীর মাধ্যমে। এভাবেই একটি সামাজিক সম্পর্কের সৃষ্টি হয়। আর সংঘবদ্ধ জনসমষ্টির এসব সামাজিক সম্পর্ক এবং কার্যাবলীই হল সমাজ। সুতরাং মানসিক বন্ধনে আবদ্ধ নির্দিষ্ট সংখ্যক মানুষ বা জনগোষ্ঠী, যাদের বিভিন্ন কার্যাবলীর মাধ্যমে গড়ে উঠা একটি সম্পর্ককেই এক কথায় সমাজ (society) বলা হয়। [সংকলিত]


সমাজ বলতে কি বুঝায় ?


Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *