সাধারণ জ্ঞান: এক নজরে বাংলাদেশ

বাংলাদেশকে জানতে আগ্রহী প্রার্থী ও অন্যান্য পাঠকদের জন্য এক নজরে বাংলাদেশ সম্পর্কে নিচে তুলে ধরা হল:-
১. বাংলাদেশ একটি স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে – ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর।
২. সরকারি নাম – গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ।
৩. রাজধানী – ঢাকা।
৪. সরকার ব্যবস্থা – সংসদীয় সরকার।
৫. রাষ্ট্রপ্রধানের দায়িত্ব পালন করেন – রাষ্ট্রপতি।
৬. সরকার প্রধানের দায়িত্ব পালন করেন – প্রধানমন্ত্রী।
৭. ভৌগোলিক অবস্থান – ২০°৩৪´ উত্তর থেকে ২৬°৩৮´ উত্তর অক্ষাংশ এবং ৮৮°০১´ পূর্ব থেকে ৯২°৪১´পূর্ব দ্রাঘিমাংশ।
৮.  আয়তন – ১,৪৭,৫৭০ বর্গকিলোমিটার।
৯. অবস্থান – পশ্চিমে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য, উত্তরে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ, আসাম ও মেঘালয় রাজ্য, পূর্বে ভারতের আসাম, ত্রিপুরা ও মিজোরাম রাজ্য ও মায়ানমার এবং দক্ষিণে বঙ্গোপসাগর।
১০. আন্তর্জাতিক স্থলসীমার দৈর্ঘ্য – প্রায় ২,৪০০ কি.মি., এর মধ্যে ৯২% ভারতের সাথে এবং বাকি ৮% মায়ানমারের সাথে। উপকূলীয় সীমারেখার দৈর্ঘ্য ৪৮৩ কি.মি. এর অধিক।
১১. ভূ-খন্ডগত সমুদ্রসীমা – উপকূল থেকে ১২ নটিক্যাল মাইল (২২.২২ কি.মি.) পর্যন্ত।
১২. অর্থনৈতিক সমুদ্রসীমা – উপকূল থেকে ২০০ নটিক্যাল মাইল (৩৭০.৪০ কি.মি.) পর্যন্ত ।
১৩. প্রশাসনিক একক  বিভাগ – ৮ টি: ঢাকা, চট্টগ্রাম, খুলনা, রাজশাহী, বরিশাল, সিলেট, রংপুর ও ময়মনসিংহ।
১৪. জেলার সংখ্যা – ৬৪টি।
১৫.বাংলাদেশের ভূখন্ড – মূলত গঙ্গা-ব্রহ্মপুত্র-মেঘনা নদীগঠিত বদ্বীপের সমন্বয়ে সৃষ্ট।
১৬. সর্বোচ্চ শৃঙ্গ – বিজয় (তাজিং ডং), এর উচ্চতা ১,২৮০ মিটার এবং এটি রাঙ্গামাটি জেলার সাইচল পর্বতে।
১৭.  বৃহৎ নদীপ্রণালী – তিনটি; গঙ্গা-পদ্মা নদীপ্রণালী, ব্রহ্মপুত্র-যমুনা নদীপ্রণালী ও সুরমা-মেঘনা নদীপ্রণালী।
১৮. বাংলাদেশের জলবায়ু – ক্রান্তীয় মৌসুমী।
১৯. পাহাড়পুর বিহার/মহাবিহার – নওগাঁ জেলার বদলগাছি উপজেলায়।
২০. মহাস্থানগড় (পুণ্ড্র নগর) – বগুড়া জেলার শিবগঞ্জ উপজেলায়।
২১. ওয়ারী-বটেশ্বর – নরসিংদী জেলার বেলাব থানায় অবস্থিত।
২২.  কক্সবাজারের সমুদ্র সৈকত – ১২০ কিলোমিটার দীর্ঘ।
২৩. কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত থেকে – সূর্যোদয় ও সূর্যাস্ত উভয় দৃশ্য দেখা যায়।
২৪. নৃতাত্ত্বিক বিচারে বাংলাদেশের মানুষ – দ্রাবিড়, প্রোটো-অস্ট্রালয়েড, মঙ্গোলীয় এবং আর্যদের সংকর।
২৫. বাংলাদেশে – প্রায় ৪৫টি উপজাতি সম্প্রদায় রয়েছে; এদের মধ্যে চাকমা, গারো, হাজং, খাসিয়া, মগ, সাঁওতাল, রাখাইন, মণিপুরী, মুরং উল্লেখযোগ্য।
২৬. রাষ্ট্রীয় ভাষা – বাংলা এবং ইংরেজি দ্বিতীয় গুরুত্বপূর্ণ ভাষা।
২৭.  প্রধান সমুদ্রবন্দর – ২টি;  চট্টগ্রাম এবং মংলা সমুদ্রবন্দর।
২৮. জাতীয় ফুল – শাপলা।
২৯. জাতীয় ফল – কাঁঠাল
৩০. জাতীয় পাখি – দোয়েল।
৩১. জাতীয় মাছ  – ইলিশ।
৩১. জাতীয় গাছ  – আম।
৩২. জাতীয় প্রাণী  – বাঘ বা বেঙ্গল টাইগার বা রয়েল বেঙ্গল টাইগার। [সংকলিত]

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *