হিমানী সম্প্রপাত | Avalanche

হিমানী [Rime] বলতে সাধারণত ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র স্ফটিকের মত বরফকণাকে বুঝায়। অর্থাৎ কুয়াশার বা কুজ্ঝটিকা জলীয়বাষ্প ঘণীভূত হয়ে জলকণায় পরিণত হয়। তবে উচ্চ অক্ষাংশের শীতপ্রধান দেশসমূহে বা পার্বত্য অঞ্চলে হিমরেখার উপরে তা ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র স্ফটিকের মত বরফকণায় পরিণত হয়। পরিণত এ বরফকণাকেই হিমানী [Rime] বলা হয়।

How to survive if you get caught in an avalanche | AccuWeather
Avalanche, image source: accuweather.com

হিমানী সম্প্রপাত [Avalanche] বলতে সাধারণত পার্বত্য অঞ্চলে পর্বতের ঢাল বেয়ে অকস্মাৎ বিশাল আকারের বরফস্তূপের পতনকে বুঝায়। অর্থাৎ পার্বত্য অঞ্চলের সু-উচ্চ পর্বতের উপরে বরফকণা জমে ক্রমে বিশাল বরফস্তূপের সৃষ্টি হয়। পৃথিবীর মাধ্যাকর্ষণ শক্তির টানে এ বরফস্তূপ অত্যন্ত ধীরগতিতে পর্বতের ঢাল বেয়ে ক্রমে নিচের দিকে নেমে আসতে থাকে। আবার দেখা যায় যে, বিশাল আকারের এ বরফস্তূপ (হিমবাহ) অকস্মাৎ ভেঙে প্রচন্ড বেগে পর্বতের ঢাল ধরে নিচের দিকে পতিত হয়। বরফস্তূপের এ অকস্মাৎ পতনকে হিমানী সম্প্রপাত (avalanche) বলা হয়। হিমানী সম্প্রপাতের গতিপথে অবস্থিত গাছপালা, বাড়িঘর প্রভৃতি ধ্বংস হয়ে যায়। বিশাল আকারের হিমানী সম্প্রপাতের ফলে নিকটবর্তী অঞ্চলে ভূমিকম্পের সৃষ্টি হতে দেখা যায়।  ১৯৬১ সালে দক্ষিণ আমেরিকার পেরুর আন্দিজ পর্বতে সবচেয়ে বড় ও ভয়াবহ হিমানী সম্প্রপাত ঘটে। [সংকলিত]

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *