বছর গণনায় অধিবর্ষের (leap year) হিসাব যেভাবে করা হয়

যে বছরের দিনের সংখ্যা ৩৬৬ এবং ফেব্রুয়ারি মাসে ২৯ দিন থাকে, সে বছরকে অধিবর্ষ বা leap year বলা হয়। সাধারণত বলা হয়ে থাকে যে, পৃথিবী ৩৬৫ দিনে একবার সূর্যকে প্রদক্ষিণ করে। সে হিসেবে ৩৬৫ দিনে একটি বছর বা সৌর বছর গণনা করা হয়। তবে প্রকৃত হিসেবে সূর্যকে প্রদক্ষিণ করতে পৃথিবীর প্রয়োজন হয় ৩৬৫দিন ৫ ঘণ্টা ৪৮ মিনিট। তাহলে ৫ ঘণ্টা ৪৮ মিনিট সময় অতিরিক্ত রয়ে যায়। এ অতিরিক্ত সময় প্রতি ৪ বছর (বিগত ৩ বছর ও চলতি বছর বা সালসহ) পর পর একটি বছরের সাথে অন্তর্ভূক্ত করা হয়। যেমন-
৫ ঘণ্টা ৪৮ মিনিট X ৪ =২৩ ঘণ্টা ১২ মিনিট। এ ২৩ ঘণ্টা ১২ মিনিটকে একটি পূর্ণ দিন হিসেবে ধরে নিয়ে প্রতি ৪ বছর পর পর  ১ দিন বাড়িয়ে ৩৬৫ দিনের পরিবর্তে ৩৬৬ দিনে বছর বা সৌর বছর গণনা করা হয়। এরূপ ৩৬৬ দিনের বছরকে অধিবর্ষ বা leap year বলা হয়। অধিবর্ষের ফেব্রুয়ারি মাসের সাথে ১ দিন যোগ করে দেয়া হয়। তাই অধিবর্ষের ফেব্রুয়ারি মাসটি ২৮ দিনের পরিবর্তে ২৯ দিন গণনা করা হয়ে থাকে। আবার এ অধিবর্ষের বছর গণনা করে বের করার একটি সহজ পদ্ধতি রয়েছে। কোন বছর বা সালকে ৪ দিয়ে ভাগ করলে ভাগফল যদি নি:শেষে বিভাজিত হয়, তাহলে ঐ বছর বা সালটি অধিবর্ষ। যেমন-
২০১৬÷৪=৫০৪, ২০১৭÷৪=৫০৪.২৫, ২০১৮÷৪=৫০৪.৫, ২০১৯÷৪=৫০৪.৭৫ ও ২০২০÷৪=৫০৫,   এখানে, ২০১৬ ও ২০২০ সাল নি:শেষে বিভাজিত কিন্তু  ২০১৭, ২০১৮ ও ২০১৯ সাল নি:শেষে বিভাজিত নয়। সূতরাং ২০১৬ ও ২০২০ সাল দুটি অধিবর্ষ বা leap year। [মো. শাহীন আলম]


[Keywords: Leap Year Calculation, Solar Year, Sourabarsha, Odhibarsha, Adhibarsha]

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *