মানচিত্রে উঁচু-নিচু ভূমি প্রদর্শন: সমোন্নতি রেখা, পরিলেখ ও ভ্রূলেখার ব্যবহার

সমোন্নতি রেখা (contour line): সমুদ্রপৃষ্ঠ (sea level) থেকে একই উচ্চতায় অবস্থিত স্থানসমূহের উপর দিয়ে যে রেখা অঙ্কন করে উচ্চতা প্রদর্শন করা হয় তাকে সমোন্নতি রেখা (contour line) বলে। আবার, সমান উচ্চতাবিশিষ্ট অঞ্চলকে যে রেখা দিয়ে যুক্ত করে মানচিত্রে প্রদর্শন করা হয়, তাকে সমোন্নতি রেখা বলা হয়। এ ধরনের কোন একটি অঞ্চল বা স্থানের মানচিত্রকে ঐ অঞ্চল বা স্থানের সমোন্নতি মানচিত্রও বলা হয়ে থাকে। মানচিত্রে প্রদর্শিত কাছাকাছি অবস্থিত সমোন্নতি রেখা দিয়ে বন্ধুর ভূ-প্রকৃতি বা খাড়া ঢালবিশিষ্ট ভূমি নির্দেশ করে। মানচিত্রে প্রদর্শিত দূরে দূরে অবস্থিত সমোন্নতি রেখা দিয়ে সমভূমি বা কম ঢালবিশিষ্ট ভূমি নির্দেশ করে।

পরিলেখ (profile): সমোন্নতি রেখার মান অনুযায়ী একটি নির্দিষ্ট পদ্ধতিতে কোন স্থানের ভূমির বন্ধুরতা বা উঁচু-নিচু ভূমি প্রদর্শনের জন্য যে ‍দ্বিমাত্রিক চিত্র অঙ্কন করা হয়, তাকে পরিলেখ বা পার্শ্বচিত্র (profile) বলে। সমোন্নতি রেখার পাশাপাশি পরিলেখের মাধ্যমে যে কোন স্থানের ভূমির প্রকৃত বন্ধুরতা বা উঁচু-নিচু বুঝা যায়। একটি নির্দিষ্ট পদ্ধতিতে সমোন্নতি রেখার মান দিয়ে প্রস্থচ্ছেদ (cross section) অঙ্কন করে যে কোন স্থানের ভূমির পরিলেখ বা পার্শ্বচিত্র (profile) প্রদর্শন করা হয়।

ভ্রূলেখা (hachure): ভূমির বন্ধুরতা বা উঁচু-নিচু স্থান প্রদর্শনের একটি পদ্ধতি হল ভ্রূলেখা (hachure)। ভ্রূলেখা হল কতগুলো ক্ষুদ্র রেখার সমষ্টি। এ রেখার সমষ্টি দেখতে প্রায় মানুষের চোখের উপরের ভ্রূর অনুরূপ। এ রেখার সমষ্টি পাহাড়-পর্বত কিংবা উঁচু ঢাল অনুযায়ী মানচিত্রের উপরে বিন্যস্ত করা হয়ে থাকে। খাড়া এবং উঁচু স্থান প্রদর্শনে ভ্রূলেখার পরিমাণ বেশি ও ঘন থাকে। কম ঢালের দিকে কম ও হালকাভাবে ভ্রূলেখা বিন্যস্ত করা হয়ে থাকে। এর ফলে কোন একটি  অঞ্চল বা স্থানের মানচিত্রে বন্ধুরতার প্রতিরূপ বা চিত্র ফুটে উঠে। [মো. শাহীন আলম]


[Keywords: High-low Land Display on Map, The Use of Contour Line, Profile and Hachure, Contour Map]


 

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *