চেরনোজেম মাটি | Chernozem Soil

চেরনোজেম মাটি [Chernozem Soil] বলতে সাধারণত জৈব পদার্থ সমৃদ্ধ কালো বর্ণের মাটিকে বুঝায়। উচ্চারণগত প্রভেদের কারণে এ মাটিকে বিভিন্ন জন বিভিন্ন ভাবে উচ্চারণ করে থাকে। যেমন – চেরনোজেম মাটি, সারনোজেম মৃত্তিকা, এবং চারনোজেম মাটি। যাহোক না কেন, চেরনোজেম  শব্দটি মূলতঃ রুশ ভাষার একটি শব্দ। চেরনোজেম শব্দটির অর্থ হল কালো (black)। অর্থাৎ চেরনোজেম মাটি হল কালো বর্ণের মাটি।

সারনোজেম মৃত্তিকা
Profile of Chernozem Soil

জানা যায় যে, রাশিয়ার মৃত্তিকা বিজ্ঞানীগণ সর্বপ্রথম এ মাটি আবিষ্কার করেন। চেরনোজেম মাটি হল তৃণভূমি অঞ্চলে সৃষ্ট  জৈব পদার্থ সমৃদ্ধ এক ধরনের কালো বা কৃষ্ণ বর্ণের মাটি। সাধারণত উষ্ণ ও শুষ্ক নাতিশীতোষ্ণ জলবায়ু এবং ৭৫ থেকে ১২৫ সে.মি. বৃষ্টিপাত বিশিষ্ট তৃণভূমি অঞ্চলে চেরনোজেম মাটির বিকাশ ঘটে। খুবই উর্বর হওয়ায় এ মাটি কৃষি কাজের জন্য খুবই উৎকৃষ্ট। এ মাটির প্রধান ফসল হল গম। তবে ভুট্টা ও অন্যান্য পশু খাদ্য এ মাটিতে উৎপাদন করা হয়ে থাকে। 

উষ্ণ ও শুষ্ক নাতিশীতোষ্ণ জলবায়ু অঞ্চলে উষ্ণতা তুলনামূলক বেশি হলে বৃষ্টিপাত অপেক্ষা বাষ্পীভবন বেশি হয়। এ অবস্থায় সেখানে উদ্ভিদ জন্মানোর জন্য প্রয়োজনীয় বৃষ্টিপাতের পরিমাণ কমে যায়। যার ফলে তৃণভূমি (grassland) সৃষ্টি হয়। এ অঞ্চলে গ্রীষ্মকাল (summer season) হল শুষ্ক প্রকৃতির এবং বর্ষাকাল (rainy season) হল উপ-আর্দ্র প্রকৃতির। আর বর্ষাকালে প্রচুর পরিমাণে ঘাস জন্মায়। এ সময়ে জীবাণুঘটিত প্রক্রিয়ায় প্রচুর পরিমাণে ঘাস (grass) পঁচে যেতে থাকে। ফলে প্রচুর গলিত উদ্ভিদ দেহ বা হিউমাস (humus) সৃষ্টি হয়। বৃষ্টির পানিতে ধৌত প্রক্রিয়ায় ক্ষার ও ক্ষারকীয় মাটির দ্রবীভূত লবণ প্রচুর পরিমাণে মাটির নিচের স্তরে চলে যায়। বর্ষাকালের শেষ হলে গ্রীষ্মকালে ক্যালসিয়াম কার্বনেট (CaCO3) ও ক্যালসিয়াম সালফেট বা জিপসাম (CaSO4) কৈশিক (capillary) প্রক্রিয়ায় পুনরায় মাটির উপরের স্তরে উঠে আসে। এরূপ ক্ষারকীয় অবস্থায় মাটির গঠন প্রক্রিয়া আরম্ভ হয়। মাটির উপরের স্তরে প্রচুর হিউমাস (humus) জাতীয় পদার্থের সঞ্চিত হতে থাকে। ফলে এ মাটিতে জৈব পদার্থের পরিমাণ বেড়ে যেতে থাকে। এ জন্য এ মাটি ধীরে ধীরে উর্বর হয়ে যায়। জৈব পদার্থ বেশি থাকে বলে এ মাটির বর্ণ কালো হয়ে থাকে। চেরনোজেম মাটির পরিবর্তিত রূপটি হল প্রেইরি মাটি।

রাশিয়াতে চেরনোজেম মাটি সর্বপ্রথম আবিষ্কৃত হলেও ইউক্রেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেইরি, চীনের সমভূমি, দক্ষিণ আমেরিকার পম্পাস তৃণভূমিসহ পৃথিবী বিভিন্ন দেশে বেশি চেরনোজেম মাটি পরিলক্ষিত হয়। তবে বাংলাদেশ, ভারত, শ্রীলঙ্কা প্রভৃতি দেশের সমভূমি অঞ্চলেও কালো বর্ণের চেরনোজেম মাটি কম বেশি দেখা যায়। [সংকলিত]


What is Chernozem Soil ?


image source: Soil


Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *