বাংলা সাহিত্যের প্রাচীন যুগ ‍ও চর্যাপদ

পঠন-পাঠনের সুবিধার জন্য বাংলা সাহিত্যকে ‍তিনটি যুগে বিভক্ত করা হয়। বাংলা সাহিত্যের এ  তিনটি যুগের মধ্যে ৬৫০ থেকে ১২০০ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত সময়কে প্রাচীন যুগের ব্যাপ্তি ধরা হয়। বাংলা সাহিত্যের এ সময়ে রচিত গুরুত্বপূর্ণ সাহিত্যকর্ম সম্পর্কে নিচে সংক্ষিপ্ত আকারে তুলে ধরা হল।

১. বাংলা সাহিত্যের প্রাচীন যুগের একমাত্র নির্ভরযোগ্য ঐতিহাসিক নিদর্শন – চর্যাপদ।
২. বাংলা সাহিত্যের আদিগ্রন্থ – চর্যাপদ।
৩. চর্যাপদের মূল নাম – চর্যাচর্যবিনিশ্চয়।
৪. চর্যাপদ হচ্ছে – বৌদ্ধ সহজিয়াদের সাধন  সঙ্গীত।
৫. চর্যাপদ রচনার উদ্দেশ্যে – ধর্মচর্চা।
৬. চর্যাপদ যে ছন্দে লেখা – মাত্রাবৃত্ত।
৭. চর্যাপদেরর প্রাপ্ত পদের সংখ্যা – সাড়ে ৪৬ টি।
৮.বাংলা সাহিত্যের আদি কবি – লুইপা।
৯. প্রথম বাঙালি কবি হিসেবে পূর্ণাঙ্গ পদ রচনা করেন – লুইপা।
১০. দ্ব্যর্থক, রূপকাত্মক ও অস্পষ্টতার জন্য চর্যাপদের ভাষাকে – সন্ধ্যা ভাষা বলে।
১১. চর্যাপদের প্রাচীন বাঙালি কবি ছিলেন – শবরপা।
১২. সবচেয়ে বেশি চর্যাপদ পাওয়া গেছে কবি –  কাহ্নপার (১৩ টি)।
১৩.  নিজেকে বাঙালি বলে পরিচয় দিয়েছেন – ভুসুকুপা।
১৪.  চর্যাপদ আবিষ্কৃত হয় – নেপালের রাজগ্রন্থশালা থেকে।
১৫. বাংলা ভাষার আদি নিদর্শন চর্যাপদ আবিষ্কৃত হয় – ১৯০৭ সালে।
১৬. বাংলা সাহিত্যের আদি গ্রন্থ ‘চর্যাপদ’ এর রচনাকাল – সপ্তম থেকে দ্বাদশ শতক।
১৭. ড. মুহাম্মদ শহীদুল্লাহর মতে, চর্যাপদের রচনাকাল – ৬৫০ থেকে ১২০০ খ্রিস্টাব্দ।
১৮. ড. মুহম্মদ শহীদুল্লার মতে, চর্যাপদের ভাষা – বঙ্গ কামরূপী।
১৯. ড. সুনীতিকুমার চট্টোপাধ্যায়ের মতে, চর্যাপদের রচনাকাল – ৯৫০ থেকে ১২০০ খ্রিস্টাব্দ।
২০. চর্যাপদ যে বাংলা ভাষায় রচিত এটি প্রথম প্রমাণ করেন – ড. সুনীতিকুমার চট্টোপাধ্যায়।
২১. চর্যাপদের পদগুলো টীকার মাধ্যমে ব্যাখ্যা করেন – মুনিদত্ত।
২২. বাংলা ভাষার প্রথম সংকলন ‘চর্যাপদ’ এর আবিষ্কার –  হরপ্রসাদ শাস্ত্রী
২৩. হরপ্রসাদ শাস্ত্রী আরও উদ্ধার করেন – ‘ডাকার্ণব’ ও ‘দোহাকোষ’ নামক বই।
২৪. হরপ্রসাদ শাস্ত্রী তাঁর সবগুলো বই প্রকাশ করেন – ‘হাজার বছরের পুরান বাঙ্গালা ভাষায় বৌদ্ধগান ও দোহা’ নামে।
২৫. ১৯১৬ খ্রিস্টাব্দে ‘হাজার বছরের পুরান বাঙ্গালা ভাষায় বৌদ্ধগান ও দোহা’ প্রকাশ পায় – বঙ্গীয় সাহিত্য পরিষদ থেকে ।
২৬. ড. হরপ্রসাদ শাস্ত্রীর উপাধি – মহামহোপাধ্যায়।
২৭. ড. হরপ্রসাদ শাস্ত্রী ছিলেন – ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের  বাংলা ও সংস্কৃত বিভাগের (১৮ জুন, ১৯২১) প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান।


[সংকলিত][শারমিন জাহান সায়মা]


[Keywords: Bangla literature, Bengali literature, Ancient period of Bengali literature, Ancient period of Bengali literature, 650 – 1200 AD of Bengali literature, Charyapad, Charzapad, Charjapad, carjapad, General Knowledge, General Knowledge Book.]


 

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *